উল্লাপাড়ায় দু’গ্রুপের সংঘর্ষে নারীসহ আহত ২০

কাগজ অনলাইন প্রতিবেদক: জেলার উল্লাপাড়ায় আম পাড়াকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে ৫ নারীসহ অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে লাঠিচার্জ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

শুক্রবার (১৯ মে) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত উল্লাপাড়া পৌর এলাকার ঝিকিড়া সানদারপাড়ায় সোহেল গ্রুপ ও আবু তালেব গ্রুপের মধ্যে দফায় দফায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

- বিজ্ঞাপন -

আহত নয়ন জল (৪০), ঝন্টু হোসেন (৫০), আবু তালেব (৩২), সাথী বেগম (৪৫), সুলতানা বেগম (২৮), শিমলা খাতুন (১৮), এনামুল ইসলাম (১৮), শ্রাবণ (২৬), মাধুর্য (১৮), খোকা(৩০), সেতু খাতুন (১৭), মিতু খাতুন (২০), পামওয়েল (৩০) কে উল্লাপাড়ার স্থানীয় হাসপাতাল ও ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া গুরুতর আহত অবস্থায় সাথী বেগম ও জন্টু হোসেনকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজে ভর্তি করা হয়েছে।

উল্লাপাড়া পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ড কমিশনার লেবু হোসেন জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার নয়ন জেলের ছেলে আবু তালেব প্রবাসী হান্নান হোসেনের আম গাছে থেকে আম পাড়ে। এ সময় হান্নানের কেয়ারটেকার সোহেল হোসেনের স্ত্রী সুলতানা বেগম আবু তালেবকে বাঁধা দিলে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সংঘর্ষ বাঁধে। এসময় সুলতান বেগম আহত হন। এ ঘটনার জের ধরে শুক্রবার সকালে আবু তালেবসহ নয়ন জলের সাত ছেলে এবং স্থানীয় ২০-২৫ জন লোক দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে সোহেল গ্রুপের সাথে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষ ইট-পাটকেল নিক্ষেপ ও দেশীয় অস্ত্রের আঘাতে পথচারী সাথী বেগম ও ঝন্টুসহ কমপক্ষে ২০ জন আহত হয়েছেন। পরে আহতদের উদ্ধার করে বিভিন্ন হাসাতাল ও ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে। খবর পেয়ে উল্লাপাড়া মডেল থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আসলাম হোসেন জানিয়েছেন, আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে ওই এলাকায় পুলিশের টহল অব্যাহত রয়েছে। উভয় পক্ষের কেউ এখন পর্যন্ত মামলা করেনি।