আজ ঢাকা আসছেন ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়

আগের সংবাদ

ফোর-জি সংক্রান্ত বিটিআরসির কার্যক্রমে কোন আইনি বাধা নেই

পরের সংবাদ

মাটির ময়নার প্রশংসায় অপর্ণা সেন

প্রকাশিত হয়েছে: জানুয়ারি ১৪, ২০১৮ , ১:৩৯ অপরাহ্ণ | আপডেট: জানুয়ারি ১৪, ২০১৮, ১:৩৯ অপরাহ্ণ

ভারতীয় অভিনেত্রী অপর্ণা সেন গতকাল শনিবার ঢাকায় এসেছেন। ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে অংশ নিতে তিনি বাংলাদেশে এসেছেন। আজ রোববার অঁলিয়স ফ্রঁসেজে ‘উইমেন ফিল্মমেকার কনফারেন্স’ শীর্ষক সেমিনারে অংশ নেয়ার কথা রয়েছে তার।

পাশাপাশি ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে প্রদর্শিত হবে অপর্ণা সেন পরিচালিত সিনেমা ‘সোনাটা’। জাতীয় গণগ্রন্থাগার মিলনায়তনে আগামীকাল সোমবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে তার এই ছবিটির প্রদর্শনীতে তিনি নিজেও উপস্থিত থাকবেন বলে নিশ্চিত করেছে ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব কৃর্তপক্ষ।

মাঝবয়সী তিন নারীর গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে ছবিটি। মারাঠি সাহিত্যিক এলকুঞ্চওয়ারের ‘সোনাটা’ নাটক অবলম্বনে নির্মিত হয়েছে এই সিনেমাটি।‘সোনাটা’ সিনেমায় শাবানা আজমি ও লিলেট দুবের সঙ্গে অভিনয় করেছেন অপর্ণাও।

অপর্না সেনের আগমন উপলক্ষে গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর ঢাকা ক্লাবে ভারতীয় হাই কমিশন আয়োজিত এক নৈশভোজ অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে কথা বলেন অপর্ণ। তিনি বাংলাদেশি চলচ্চিত্র নিয়ে বলেন, ‘নানা কারণে বাংলাদেশি চলচ্চিত্র দেখা হয় না। তবে প্রয়াত চলচ্চিত্র নির্মাতা তারেক মাসুদের ‘মাটির ময়না’ চলচ্চিত্রটি দেখেছি। মুগ্ধ হয়েছি। অসাধারণ এই সিনেমাটি সবার একবার হলেও দেখা উচিত। তারেক মাসুদ দারুণ একজন নির্মাতা ছিলেন।’

অপর্ণা এ সময় বলেন, ‘ঘরে-বাইরে নারীরা আজও অবহেলিত। আমি চাইবো নারীরা এই শৃঙ্খল থেকে বেরিয়ে এগিয়ে যাবেন। নিজেদের যোগ্যতার প্রমাণ দিবেন। চলচ্চিত্রে এখন বিশ্বজুড়েই নারীদের প্রাধান্য বাড়ছে।’

অনুষ্ঠানে ভারতীয় হাই কমিশনার হর্ষ বর্ধন শ্রিংলার পাশাপাশি কলকাতার জনপ্রিয় চিত্রনায়ক পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়, তারিক আনাম খান, তৌকির আহমেদ, জাহিদ হাসান, চিত্রনায়ক ফেরদৌস, হানিফ সংকেত, আফসানা মিমি, বিপাশা হায়াত, মেহের আফরোজ শাওন, রোকেয়া প্রাচীসহ নাটক ও চলচ্চিত্রের অভিনয়শিল্পীরা উপস্থিত ছিলেন।

গত শুক্রবার ১২ জানুয়ারি থেকে শুরু হয়েছে ‘ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব ২০১৮’। রেইনবো ফিল্ম সোসাইটির আয়োজনে ‘ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব’ এর এটি ১৬তম আয়োজন অনুষ্ঠিত হয়েছে। চলবে আগামী ২০ জানুয়ারি শনিবার পর্যন্ত। এবারের চলচিত্র উৎসবের প্রতিপাদ্য হলো- ‘উত্তম ছবি, উত্তম দর্শক ও উত্তম সমাজ’।

ঢাকার পাঁচটি মিলনায়তনে ৬৩টি দেশের ২১৪টি সিনেমা প্রদর্শিত হবে এবারের উৎসবে। এশিয়ান চলচ্চিত্র, রেট্রোসপেকটিভ, বাংলাদেশ প্যানারমা, সিনেমা অব দ্য ওয়ার্ল্ড, শিশুতোষ ছবি, নারী নির্মাতা, স্বল্পদৈর্ঘ্য ও স্বাধীন চলচ্চিত্র এবং স্পিরিচুয়াল সিনেমা বিভাগে ছবিগুলো দেখানো হবে।