Bhorer Kagoj logo
ঢাকা, সোমবার, ১৬ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং | ১লা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ১৬ই মুহাররম, ১৪৪১ হিজরী

চট্টগ্রামে শীতের সবজিতে ক্রেতার মুখে হাসি


প্রকাশঃ ২০-০১-২০১৭, ৮:২৫ অপরাহ্ণ | সম্পাদনাঃ ২০-০১-২০১৭, ৮:২৫ অপরাহ্ণ

2কাগজ অনলাইন প্রতিবেদক: চট্টগ্রামের কাঁচা বাজার শীতের সবজিতে ভরপুর। মৌসুমি সবজিতে ক্রেতার মুখে এখন হাসি। ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে থাকায় সব শ্রেণীপেশার মানুষ স্বস্তিতে এসব সবজি ক্রয় করছেন। নগরের প্রধান কাঁচা বাজার কাজির ডেউরি, রিয়াজুদ্দিন বাজার, কর্ণফুলী বাজার ও বহদ্দার হাটে খোঁজ নিয়ে এ তথ্য জানা যায়।

আজ কাঁচা বাজারে প্রতিকেজি আলু বিক্রি হয় ১৫ টাকা, বেগুন ৪০ টাকা, টমেটো ৩০-৩৫ টাকা, লাউ ৩০ টাকা, বরবটি ৫০ টাকা, তিতকরলা ৫০ টাকা, পেঁপে ২৫ টাকা, মুলা ২০ টাকা, শিম ৩০ টাকা, কাঁচা মরিচ ৪০-৫০ টাকা, ফুলকপি ৩০-৩৫ টাকা ও বাধা কপি ২০-৩০ টাকা।

কর্ণফুলী বাজারের ক্রেতা শিক্ষার্থী হামিদ হোসাইন আজাদ বলেন, বাজারে মৌসুমী সবজি আসায় দাম একটু কম। জানি না কতদিন এই দাম থাকবে। হয়তো দেখা যাবে এক শ্রেণীর অসাধু ব্যবসায়ীদের কারসাজিতে দাম আবার উর্ধ্বমুখি হচ্ছে। তখন তা টেনে ধরার কেউ থাকে না।

এই বাজারের বিক্রেতা কফিল উদ্দিন বলেন, শীত মৌসুমে সবজির দাম একটু কমই থাকে। তবে আরো কম থাকতো যদি আমাদের নানা ভাবে অতিরিক্ত টাকা খরচ না হতো।

বাগদাদ বাণিজ্যালয়ের মালিক আবদুর রহিম চৌধুরী বলেন, দেশের দিনাজপুর, জয়পুরহাট, বগুড়া, রাজশাহী, গাইবান্ধা, ঠাকুরগাঁওসহ বিভিন্ন জেলা থেকে আলু আসছে। এ সব আলু সর্বোচ্চ ৬০ দিন রাখা যাবে। এরপর ফেটে যাবে। আলুর জাতগুলো যদি উন্নত হতো তবে চাষিরা যেমন লাভবান হতেন তেমনি ব্যবসায়ী ও ভোক্তারা সুফল পেতেন।

এদিকে, নগরীর কাজীর দেউড়ি কাঁচাবাজারে প্রতি কেজি লাক্ষা মাছ (কাটা) বিক্রি হচ্ছে ২ ‍হাজার টাকা, কোরাল দেড় হাজার টাকা। গরুর মাংস হাড় ছাড়া ৫৫০ টাকা, হাড়সহ ৪৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।



পাঠকের মতামত...

Top