রুনা লায়লার হ্যাট্রিক

শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৬

আলোচনার পাল্লায় আরও একধাপ ভারী করলেন রুনা লায়লা। জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার জয়ে এবার হ্যাটট্রিক করলেন ২০১৪ সালে মুক্তি পাওয়া ‘প্রিয়া তুমি সুখী হও’ ছবিতে মনমাতানো গায়কীর জন্য টানা তৃতীয়বার এ স্বীকৃতি পেলেন তিনি।দেশীয় চলচ্চিত্র শিল্পে গৌরবোজ্জ্বল ও অসাধারণ অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ ২৬টি বিভাগে বিশিষ্ট শিল্পী ও কলাকুশলীদের এ পুরস্কারে ভূষিত করেছে সরকার। গত বৃহস্পতিবার এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে তথ্য মন্ত্রণালয় থেকে ঘোষণাটি দেয়া হয়। এর আগে ২০১২ সালে ‘তুমি আসবে বলে’ আর ২০১৩ সালে ‘দেবদাস’ ছবির গানের জন্য জাতীয় পুরস্কার পান রুনা। জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার জয়ে হ্যাটট্রিক করে তিনি উচ্ছ¡সিত। নিজের অনুভূতি জানিয়ে রুনা বললেন, ‘তৃতীয়বার সেরা গায়িকা হয়ে হ্যাটট্রিক করলাম, এজন্য খুব ভালো লাগছে। আমাকে নির্বাচন করার জন্য বিচারকদের ধন্যবাদ। সরকারকেও ধন্যবাদ। আমার শ্রোতা, ভক্ত ও দেশবাসীর কাছে দোয়া চাই, আমি যেন এভাবেই আরো অনেকদিন গেয়ে যেতে পারি।’ চলচ্চিত্রের গান গাওয়ার জন্য এ নিয়ে সাতবার জাতীয় পুরস্কার পেলেন রুনা। প্রথমবার পেয়েছিলেন ১৯৭৬ সালে ‘দি রেইন’ ছবির ‘চঞ্চলা হাওয়ারে’ গানের জন্য। পরের বছর ‘জাদুর বাঁশি’র ‘জাদু বিনা পাখি’ গানটি তাকে এ সম্মান এনে দেয়। ১৯৮৯ সালে ‘অ্যাক্সিডেন্ট’ আর ১৯৯৪ সালে ‘অন্তরে অন্তরে’ ছবির ‘কাল তো ছিলাম ভালো’ গানের জন্য আরো দু’বার জাতীয় পুরস্কার পান রুনা।

কয়েক বছর আগে মুম্বাই থেকে কলকাতা আসার পথে উড়োজাহাজে গানের নক্ষত্র রুনা লায়লা ও ক্রিকেটের তারকা সৌরভ গাঙ্গুলীর হঠাৎ দেখা হয়েছিল। এরপর এক অনুষ্ঠানে রুনা গেয়েছিলেন আর নেচেছিলেন গাঙ্গুলীর অর্ধাঙ্গিনী ডোনা গাঙ্গুলী। নতুন খবর হলো, ভারতের প্রাক্তন ক্রিকেটার সৌরভ গাঙ্গুলীর সঞ্চালনায় জি বাংলা চ্যানেলের জনপ্রিয় অনুষ্ঠান

‘দাদাগিরি’তে অংশ নিতে যাচ্ছেন রুনা লায়লা।

এখানে একটি বিশেষ পর্বে দেখা যাবে আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন কণ্ঠশিল্পীকে। এ পর্বে রুনার পাশাপাশি ভারতের খ্যাতিমান কয়েকজন কণ্ঠশিল্পীও থাকবেন। তাদের মধ্যে রয়েছে আরতি মুখোপাধ্যায় ও রেখা ভরদ্বাজের নাম।

কুমার শানুরও থাকার সম্ভাবনা আছে।

‘দাদাগিরি’তে অংশ নিতে আগামী ২৯ ফেব্রুয়ারি কলকাতায় যাচ্ছেন রুনা লায়লা। পর্বটির দৃশ্যায়ন হবে ১ মার্চ।

পরদিনই তিনি ঢাকায় ফিরবেন বলে জানালেন। অনুষ্ঠানটিতে অংশ নেয়ার সম্মতি জানানো প্রসঙ্গে রুনা বললেন, সৌরভ গাঙ্গুলীর সঞ্চালনা আমি উপভোগ করি। অনুষ্ঠানটি অন্যান্য গেম শোর চেয়ে একটু আলাদা। আর এখানে আমার মতো গানের মানুষরাই থাকবেন জেনে আরো ভালো

লাগছে।

:: মেলা প্রতিবেদক

মেলা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj