আসলাম সানী’র ছড়াগুচ্ছ

সোমবার, ৪ জুলাই ২০১৬

এই ঢাকা আমার

হালাকু খা’র নাতি আমি

চেঙ্গিস খা’র পোতা

আজকা নিকি! এইটা জাইনো

সেই জমানার কথা,

কালাপাহাড়-গজনী মাহমুদ

আমার নানার দোস

পুরান ঢাকার খাওন খায়া

পাইছিলো বি জোস,

দাদার লগে কুস্তি লড়তে

আলেকজান্ডার আয়া

রাসবাহারী পোলাও কোর্মা

কোপ্তা-কবাব খায়া

দেশে ফিরা যায়া-

সেলুকাসরে কইছিলো বি

বিচিত্র এই দেশ!

মগর আমরা শেষ,

মোগলরাবি সোনা-দানা-

হিরা পান্না লিয়া

নূরজাহান আর মমতাজরে

করছিলো বি বিয়া,

আরমেনিয়ান-ডাচ-ডিনোমার

আয়া পর্তুগিজ

দিলো শংকর বীজ

ইংরেজ আয়া লিয়া খায়া

মজা পায়া দুইশো বছর পার

বাঁইচা গেছি মুসোলিনি-

আহেনি হিটলার

অহনও বি বাঁইচা আছে

জামাত-রাজাকার

এই ঢাকা আমার সইয্য হয় না আর

ধইরা দিম ঘার।

ঢাকা আয়া-খাওন খায়া

পুরান ঢাকার হাজীর বিরিয়ানি

খাইছি যারা আমরা তারা

ভালা কইরাই জানি-

কিমুন মজা ফিন্নি-লাবাং

লাচ্চি আর বোরহানি

কিমুন মজা পুরান ঢাকার

খাস্তা বাকরখানি

কিন্তু পচা-দূষিত খুব

বুড়িগঙ্গার পানি

আহেন ঢাকার ঐতিহ্য

ফিরায়া বি আনি-

নান্নার পোলাও খাননা ক্যাঠা?

দাদা-বাবা খাইছে জ্যাঠা

মার্কিন দূত হ্যারিকেন টমাস

ঢাকায় আয়া

খাওন খায়া

মজা পায়া

প্রথম প্রথম ক’মাস

ইয়া মোটা হয়

খায়া বি কয়

কি মজাদার খাস

খাওন-দাওন-মৌজ-ফ‚র্তিই

ঢাকার ইতিহাস,

ব্রিটিশরাবি খায়া

আচ্ছা মজা পায়া

দুইশ বছর কইরা দিলো পার

পুরান ঢাকার খাওয়া-দাওয়া

ইমুন মজাদার

একবার বি খাইলে ঢাকা

কেউ ছাড়ে না আর।

আমগো ঢাকা ফিরৎ চাই

সুক্রাপুরের ভূতরা বুঝি

করতাছে হইচই

ইলেক্ট্রিকের বাত্তির আলোয়

থাকুম আমরা কই?

আমগো ঢাকা ফিরৎ চাই

ঘুপচি গলির হাইরাইজে

আর থাকুম না ভাই-

লোহার পুলের বান্দরেরা

সন্ধ্যা অইলে চিল্লায়

মোগল-শায়েস্তা খানেরা বি

নাইক্যা লালবাগ কিল্লায়-

ঢাকাইয়্যা কই যাই?

বুড়িগঙ্গার পচাপানি

কেমতে আমরা খাই?

সর্দারেরা কান্দে

গাঠ্ঠি বোঁচকা কান্দে

পরিবিবি শরমিন্দা

বোলতাগাড়া টান দে

ঢাকা ছাইড়া সবতে মিলা

চল যাইগা চান্দে।

ঢাকার পোলা

ঢাকার পোলা আলাভোলা

দেহি ধোলাই খালপাড়ে

আনন্দে খুব গদোগদো

খালি খালি ফাল পাড়ে-

ব্যাপারটা কি?

টপার নাকি

আক্কেল দাঁত উঠছে

বিয়ার বি ফুল ফুটছে

তাই লাফায়া ছুটছে

ছুটতে ছুটতে চায়া দেহি

লালবাগ কেল্লায় উঠছে

উইঠা দেহি টোটা দিয়া

গাছে থে তাল পাড়ে

ঢাকার পোলা দিলটা খোলা

খুশিতে ফাল পাড়ে।

পুরান ঢাকার পোলা

পুরান ঢাকার পোলা

আমার দিলটা বি খুব খোলা

আমি মানুষ আলাভোলা,

বয়া বয়া খোয়াব দেখি

ঢাকার প্রেমে ছড়া লেখি

সলিম উল্লাহ্ দাদা

ঢাকার নবাব জাদা

নিজের বাইতে

আইতে যাইতে

নাই বি কুনু বাধা,

কার্জন সাব গর্জন দিলে

করি নাহি ডর

ঢাকার পোলাই বাহান্নতে

একাত্তরের রাজ পথে

তুইলা ছিলাম ঝড়,

এক জমানায় মোগল-ইংরেজ

লোড়াইছিলাম আমি

ঢাকার পোলা বাংলাদেশের

স্বাধীনতাকামী।

দেখতে দেখতে

হরেক রকম মানুষ দেখছি

নানান কিসিম খেল-

কতো ইতিহাস-

জ্ঞানীরাবি ফেল

মূর্খরা অয় পাশ

সাধুখাটে জেল

কালের সর্বনাশ,

শহর দেখছি-গেরাম দেখছি

উন্নয়নের রেল

ঝক্কর ঝক্কর ছুটতে আছে

রাজা-বাদশার খেল

বাত্তি জ্বলে-বাত্তি নেভে

ফুরায়া যায় তেল-

জনগণে আঙ্গুল চোষে

হাতে হারিকেল-

লোটা-কম্বল সাথে লিয়া

ভারত ব্রিটিশ-পাক বি গিয়া

আইছে সুপার মেল

বাংলাদেশের বেল-

দেখতে দেখতে সময় কাটে

দিন অয়া যায় রাইত

মামুর কুপ্পি কাইত

ঘুম আইতাছে

যাইগা গিয়া

ঘুমাই গিয়া বাইত।

ঢাকাই পরিচয়

এক জমানায় ঢাকা ছিল

বুড়িগঙ্গার তীরে

পূর্ব-পশ্চিম, উত্তর-দক্ষিণ

বাড়ে ধীরে ধীরে-

বাড়তে বাড়তে বিশাল ঢাকা

নতুন-পুরান হয়

রাজধানী বি কয়

আমি মগর খাস ঢাকাইয়্যা

ঢাকাই পরিচয়

কুট্টি বি কেউ কয়,

ঢাকায় আছি-ঢাকায় বাঁচি

অলিগলি ঘুরি

পোলাও-কোর্মা-বাকরখানি

খাইতাছি ডাইল-পুরি

হিন্দি গান আর কাওয়ালিতে

রঙিন হাওয়ায় উড়ি।

তখন করবি কি?

চরকির লাহান

ঘুরবার লাগছস ক্যালা

গ্যারাকলে পড়বি যহন

বুঝবি তহন ঠ্যালা

ঘরে-বাইরে-হাওয়ায় বিষে

ফরমালিনে জীবন মিশে

হারাইবি জ্ঞান-বুদ্ধি-দিশে-

তখন করবি কি?

উপায় জানস নি?

সিদা গিয়া ছাদে উঠ

নাইলে বি গ্রামে ছুট-

বিশুদ্ধ জল-বায়ু আছে

নদী-মাঠে-বনে-গাছে-

ওই প্রকৃতির কাছে

আছে রে সুখ আছে।

ঈদ সাময়িকী ২০১৬'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj