ডিএসইতে ২ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ সূচক

সোমবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৬

কাগজ প্রতিবেদক : ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স প্রায় ২ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ অবস্থানে উঠে এসেছে। গতকাল রোববারের লেনদেনে মূল্যসূচক এ অবস্থানে উঠে এসেছে। ডিএসইর ওয়েবসাইট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। এদিন ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স ১২.৮৭ পয়েন্ট বেড়ে ৪৯৩৮.৫৯ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে, যা প্রায় ২ বছর বা ২০১৫ সালের ১৮ জানুয়ারির মধ্যে সর্বোচ্চ।

গতকাল মূল্যসূচক বাড়লেও আর্থিক লেনদেন কমেছে। এদিন ডিএসইতে ৯৭৫ কোটি ২ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। যার পরিমাণ আগের দিন ছিল ১ হাজার ২৩ কোটি ৫ লাখ টাকা।

ডিএসইতে ৩২৪টি কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিটের লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে ১৪৬টি কোম্পানির শেয়ার ও ইউনিটের দর বেড়েছে, ১৩৫টি কোম্পানির দর কমেছে এবং ৪৩টি কোম্পানির দর অপরিবর্তিত রয়েছে। টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে বাংলাদেশ বিল্ডিং সিস্টেমসের শেয়ার। এদিন কোম্পানির ৪৩ কোটি ১২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে থাকা লাফার্জ সুরমা সিমেন্টের ৩৯ কোটি ১৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ৩২ কোটি ৯৩ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে সামিট অ্যালায়েন্স পোর্ট।

লেনদেনে এরপর রয়েছে- ইফাদ অটোস, এ্যাপোলো ইস্পাত, আরএসআরএম স্টিল, একটিভ ফাইন কেমিক্যাল, গোল্ডেন হার্ভেস্ট অ্যাগ্রো ইন্ডাস্ট্রিজ, কনফিডেন্স সিমেন্ট ও নাভানা সিএনজি।

গতকাল অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সিএসসিএক্স সূচক ৪৯.১০ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯২১২.৮৪ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে ৫৪ কোটি ১১ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

এদিন সিএসইতে লেনদেন হওয়া ২৫৫টি ইস্যুর মধ্যে দর বেড়েছে ১২৭টির, কমেছে ১০১টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৭টির।

গেইনারের শীর্ষে নাভানা সিএনজি : গতকাল রোববারের লেনদেনে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) টপটেন গেইনারের শীর্ষে উঠে এসেছে নাভানা সিএনজি। এদিন কোম্পানির শেয়ার দর বেড়েছে ৯.৯৮ শতাংশ। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। গত বৃহস্পতিবার নাভানা সিএনজির শেয়ারের সমাপনী মূল্য ছিল ৬০.১ টাকা। তবে গতকালের লেনদেন শেষে কোম্পানির শেয়ারের সমাপনী মূল্য গিয়ে দাঁড়িয়েছে ৬৬.১ টাকায়। এ দিন কোম্পানির শেয়ার ৬১.৫ টাকা থেকে ৬৬.১ টাকায় লেনদেন হয়। টপটেন গেইনারের অপর ইস্যুগুলোর মধ্যে সামিট অ্যালায়েন্স পোর্টের ৯.৬০ শতাংশ, এইচআর টেক্সটাইলের ৯.৪৮ শতাংশ, মিরাকল ইন্ডাস্ট্রিজের ৯.২৯ শতাংশ, আরএসআরএম স্টিলের ৭.৪১ শতাংশ, ইউনিয়ন ক্যাপিটালের ৭.৪১ শতাংশ, এ্যাপোলো ইস্পাতের ৭.৩৪ শতাংশ, কেডিএস এক্সেসরিজের ৬.৭৮ শতাংশ, ইন্টারন্যাশনাল লিজিং এন্ড ফাইন্যান্সিয়ালের ৬.৪২ শতাংশ ও শাহজিবাজার পাওয়ারের ৬.২১ শতাংশ দাম বেড়েছে। তবে দাম বাড়ার এ তালিকায় ‘জেড’ ক্যাটাগরিভুক্ত কোম্পানিগুলোকে বিবেচনায় নেয়া হয়নি।

লুজারের শীর্ষে মিথুন নিটিং : গতকাল রোববারের লেনদেনে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) টপটেন লুজারের শীর্ষে উঠে এসেছে মিথুন নিটিং এন্ড ডাইং। এদিন কোম্পানির শেয়ারের দর কমেছে ১৬.৭৪ শতাংশ। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। গত বৃহস্পতিবার মিথুন নিটিং এন্ড ডাইংয়ের শেয়ারের সমাপনী মূল্য ছিল ৬৮.৭ টাকা। তবে গতকাল লেনদেন শেষে কোম্পানির শেয়ারের সমাপনী মূল্য গিয়ে দাঁড়িয়েছে ৫৭.২ টাকায়। এদিন কোম্পানির শেয়ার ৫৬.৯ টাকা থেকে ৫৯.৯ টাকায় লেনদেন হয়। টপটেন লুজারে উঠে আসা অপর ইস্যুগুলোর মধ্যে আইডিএলসির ১৪.৭৩ শতাংশ, সিএন্ডএ টেক্সটাইলের ৬.৩৮ শতাংশ, আনলিমা ইয়ার্নের ৫.৬১ শতাংশ, যমুনা অয়েলের ৫.০৪ শতাংশ, আরএন স্পিনিংয়ের ৪.৭৮ শতাংশ, ফেমিলিটেক্সের ৪.৬৫ শতাংশ, লাফার্জ সুরমা সিমেন্টের ৪.২০ শতাংশ, ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ডের ৪.১৫ শতাংশ ও রেনউইক যজ্ঞেশ্বরের ৩.৯৬ শতাংশ দর কমেছে। দর হারানোর তালিকায় সব ক্যাটাগরির কোম্পানিকে বিবেচনায় নেয়া হয়েছে।

অর্থ-শিল্প-বাণিজ্য'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj