প্রধানমন্ত্রীর বহরের দিকে যাওয়া মোটর সাইকেল আরোহী কানকাটা রমজান

শনিবার, ২০ মে ২০১৭

কাগজ প্রতিবেদক : প্রধানমন্ত্রীর গাড়িবহরের দিকে মোটরবাইক নিয়ে এগিয়ে যাওয়ার সময় গ্রেপ্তার হওয়া যুবকটি কানকাটা রমজান নামে পরিচিত বলে জানিয়েছে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে সবুজবাগ থানায় অন্তত ১২টি মামলা রয়েছে।

রাজধানীর শিক্ষা ভবনের উল্টো দিক দিয়ে গত মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গাড়িবহর যাচ্ছিল। সে সময় হঠাৎ প্রচণ্ড গতিতে মোটরবাইক চালিয়ে বহরের দিকে যাওয়ার চেষ্টা করে এক যুবক। তাকে থামানোর জন্য সার্জেন্ট সিগন্যাল দেন। কিন্তু না থামায় লাথি দিয়ে ওই যুবককে বাইকসহ রাস্তায় ফেলে দিয়ে আটক করা হয়। শাহবাগ পুলিশ তাকে থানায় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে তার পরিচয় গোপন করে ভুল ও মিথ্যা তথ্য দিয়ে পুলিশকে বিভ্রান্ত করতে থাকে। জিজ্ঞাসাবাদের একপর্যায়ে পুলিশ জানতে পারে তার ডাকনাম নয়ন হলেও অপরাধ জগতে সে কানকাটা রমজান নামেই পরিচিত। তার বিরুদ্ধে ডাকাতি, ছিনতাই, মাদক, অবৈধ অস্ত্র বেচাকেনাসহ সবুজবাগ থানায় অন্তত ১২টি মামলা রয়েছে। শাহবাগ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল হাসান গতকাল শুক্রবার ভোরের কাগজকে বলেন, ওই ঘটনার পর তার বিরুদ্ধে মামলা করে গত বৃহস্পতিবার তাকে আদালতে পাঠানো হয়। আদালত ১ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। তিনি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী যাওয়ার সময় রমজানকে পুলিশ থামার জন্য সিগন্যাল দিলে সে ভয় পেয়ে যায়। যেহেতু তার নামে একাধিক মামলা রয়েছে তাই সে মনে করে পুলিশ গ্রেপ্তারের জন্য তাকে আটকাতে চাইছে। তখন রমজান না থেমে আরো গতিতে বাইক চালিয়ে প্রধানমন্ত্রীর গাড়িবহরের দিকে যাওয়ার চেষ্টা করে। তখন লাথি দিয়ে ওই যুবককে বাইকসহ রাস্তায় ফেলে দিয়ে আটক করা হয়। রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদে এসব তথ্য জানায় রমজান। সবুজবাগ থানার ওসি আবদুল কুদ্দুস ফকির জানান, রমজানকে শাহবাগ থানা পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। তার বিরুদ্ধে ডাকাতি, ছিনতাই, মাদক, অবৈধ অস্ত্র বেচাকেনাসহ সবুজবাগ থানায় অন্তত ১২টি মামলা রয়েছে।

প্রথম পাতা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj