হামলা ও ভাঙচুর : পাবনায় ভূমিমন্ত্রীর ছেলেসহ গ্রেপ্তার ১১

শনিবার, ২০ মে ২০১৭

পাবনা ও ঈশ্বরদী প্রতিনিধি : পাবনার ঈশ্বরদীতে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা ও ভাঙচুরের অভিযোগে ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ ডিলুর ছেলেসহ ১১ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গত বৃহস্পতিবার রাতে যৌথবাহিনীর অভিযানে তাদের আটক করা হয়।

স্থানীয়রা জানান, আধিপত্য বিস্তার নিয়ে পাবনা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ ডিলু এমপির সঙ্গে তার জামাতা আওয়ামী লীগ নেতা ও ঈশ্বরদীর পৌর মেয়র আবুল কালাম আজাদের অনেক দিন ধরেই বিরোধ চলে আসছিল। এরই জের ধরে বৃহস্পতিবার বিকেলে ভূমিমন্ত্রীর ছেলে তমাল ও যুবলীগ নেতা রাজিব সরকারের নেতৃত্বে ১০-১৫ জনের একদল সশস্ত্র সন্ত্রাসী ঈশ্বরদী পৌর সদরে বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা চালায়। এ সময় মন্ত্রীর জামাতা আবুল কালাম আজাদের মিষ্টির দোকান ও বেশ কিছু সাধারণ ব্যবসায়ীর দোকানে ব্যাপক ভাঙচুর চালায় হামলাকারীরা। একই সময় হামলাকারীরা আবুল কালাম আজাদ সমর্থিত উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জুবায়ের বিশ্বাসের বাড়িতেও ভাঙচুর চালায়। এ সময় বাধা দিতে গেলে তাদের মারধরে ছাত্রলীগ সভাপতির মা আহত হন।

পুলিশ জানায়, হামলার ঘটনায় ছাত্রলীগ সভাপতি জুবায়ের বিশ্বাসের বাবা মুক্তিযোদ্ধা আতিয়ার বিশ্বাস বাদী হয়ে ঈশ্বরদী থানায় বৃহস্পতিবার রাতে একটি মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় ভূমিমন্ত্রীর ছেলে শিরহান শরীফ তমালকে এক নম্বর ও যুবলীগ নেতা রাজিব সরকারকে দুই নম্বর আসামি করাসহ ৩২ জনের নাম উল্লেখপূর্বক অজ্ঞাত ১৫-২০ জনের নামে মামলা করা হয়।

এরপর রাতেই অভিযানে নামে ঈশ্বরদী ও পাবনা পুলিশের একটি যৌথ টিম। তারা বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে হামলার আসামি ভূমিমন্ত্রীর ছেলে শিরহান শরীফ তমাল, মাসুম, সামসুদ্দিন, রনি, জাহাঙ্গীর, মেহেদী, মাহবুব, প্রিন্স, ছবিরুল, জাফর, ফাহাদ এ ১১ জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। গতকাল শুক্রবার তাদের পাবনা জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

প্রথম পাতা'র আরও সংবাদ