নারায়ণগঞ্জে অভিনব কায়দায় মাদক পাচার, আটক ৩

মঙ্গলবার, ১৮ জুলাই ২০১৭

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি : জেলায় অভিনব কায়দায় পাচারকালে দেড় লক্ষাধিক পিস ইয়াবা ট্যাবলেট ও ফেনসিডিলসহ তিন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। গত রোববার ভোর রাতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে সদর উপজেলার সিদ্ধিরগঞ্জ থানার মৌচাক এলাকায় ডাচ বাংলা ব্যাংকের সামনে থেকে একটি পিকআপ ভ্যান আটক করে এই মাদকদ্রব্যগুলো জব্দ করা হয়। এর আনুমানিক মূল্য প্রায় পাঁচ কোটি টাকা হবে বলে পুলিশ ধারণা করছে। রোববার বিকেলে জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে জেলা পুলিশ সুপার মঈনুল হক সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান। আটককৃতরা হচ্ছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নুরুল ইসলাম, রাজধানীর যাত্রাবাড়ী এলাকার আলম ও নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা এলাকার বাদশা।

সংবাদ সম্মেলনে জেলা পুলিশ সুপার জানান, রোববার ভোর রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল সিদ্ধিরগঞ্জ থানার মৌচাক এলাকায় ডাচ বাংলা ব্যাংকের সামনে কক্সবাজার থেকে ঢাকাগামী একটি পিকআপ ভ্যান আটক করে ভেতরে থাকা নুরুল ইসলাম ও আলমকে জিজ্ঞসাবাদ করে। পরে তাদের দেয়া তথ্য ও স্বীকারোক্তি অনুযায়ী ওই পিকআপ ভ্যানের চেসিসের ভেতরে অভিনব কায়দায় একটি বাক্সে রাখা অবস্থায় ১ লাখ ৬৭ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট জব্দ করে। আটককৃতরা স্বীকার করে ইয়াবাগুলো কক্সবাজার থেকে পাচারের উদ্দেশে ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। একই সময়ে ফতুল্লা থানার নয়ামাটি এলাকায় পৃথক অভিযান চালিয়ে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ ১৫০ বোতল ফেনসিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ী বাদশাকে আটক করে। পুলিশ সুপার জানান, গত এক বছরে জেলার মধ্যে জব্দকৃত এটিই সবচেয়ে বড় মাদকের চালান। আটককৃতরা বড় ধরনের মাদক ব্যবসায়ী। তাদের বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলার প্রস্তুতি চলছে এবং এই মাদকের চালানের মূল ব্যবসায়ী ও এর সঙ্গে জড়িত অন্যদের গ্রেপ্তারে পুলিশ তৎপর রয়েছে।

সারাদেশ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj