ধামইরহাটে নির্যাতনে গৃহবধূ হত্যা : স্বামী-শাশুড়ি আটক

মঙ্গলবার, ১৮ জুলাই ২০১৭

ধামইরহাট (নওগাঁ) প্রতিনিধি : ধামইরহাটে নির্যাতন চালিয়ে গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগে স্বামী ও শাশুড়িকে আটক করেছে পুলিশ।

থানায় এজাহার সূত্রে জানা গেছে, গত প্রায় ১ বছর আগে উপজেলার ধামইরহাট ইউনিয়নের হরিতকীডাঙ্গা (মহব্বতপুর) গ্রামের আবদুল হামিদের ছেলে মামুন হোসেন রাজুর (২৪) সঙ্গে জাহানপুর ইউনিয়নের মঙ্গলবাড়ী (মুকুন্দপুর) গ্রামের বাদল হোসেনের মেয়ে ববিতা খাতুনের (১৯) বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে মামুন হোসেন রাজু যৌতুকের জন্য প্রায়ই ববিতার ওপর নির্যাতন চালাত। এর এক পর্যায়ে গত শুক্রবার রাতে ববিতার উপর রাজু অমানসিক নির্যাতন চালায়। এতে ঘটনাস্থলে ববিতা মারা যান। পরবর্তী সময়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জন্য নওগাঁ মর্গে প্রেরণ করে।

ববিতার মা তাজনুর বেগম বাদী হয়ে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। এ ব্যাপারে ধামইরহাট থানার ওসি (তদন্ত) মো. সানোয়ার হোসেন বলেন, মামলার পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশ ববিতার স্বামী মামুন হোসেন রাজু ও তার মা বিলকিছ বেগমকে (৪৫) আটক করে জেলহাজতে প্রেরণ করেছে। তিনি আরো বলেন, ববিতার গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, তাকে নির্যাতন চালিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পাওয়া গেলে প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে।

এই জনপদ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj