করুণাময় গোস্বামী ও সুধীন দাশকে স্মরণ বাংলা একাডেমির

মঙ্গলবার, ১৮ জুলাই ২০১৭

কাগজ প্রতিবেদক : বাংলা সঙ্গীতের ক্ষেত্রে যারা বিশেষ অবদান রেখেছেন তাদের মধ্যে অন্যতম এক নাম- সুধীন দাশ। তিনি একাধারে সঙ্গীতজ্ঞ, সঙ্গীত গবেষক এবং গানের সুরের স্বরলিপিকার। লালনগীতির প্রথম স্বরলিপি গ্রন্থ এবং নজরুলের গানের স্বরলিপি গ্রন্থ প্রকাশকারী এই সঙ্গিতজ্ঞ গত ২৭ জুন প্রয়াত হন। অন্যদিকে, দেশের অন্যতম সঙ্গীত গবেষক ও প্রাবন্ধিক করুণাময় গোস্বামী। তিনি গত ১ জুলাই প্রয়াত হন। সদ্য প্রয়াত দেশের এই দুই গুণীর স্মরণে বাংলা একাডেমির আয়োজনে অনুষ্ঠিত হলো স্মরণসভা।

এ স্মরণসভায় একুশে পদক পাওয়া সঙ্গীতজ্ঞ সুধীন দাশকে এবং গবেষক ও প্রাবন্ধিক করুণাময় গোস্বামীকে শ্রদ্ধা জানাল প্রতিষ্ঠানটি। গতকাল সোমবার বিকেলে একাডেমির কবি শামসুর রাহমান সেমিনার কক্ষে এই স্মরণসভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সূচনা বক্তব্য দেন একাডেমির মহাপরিচালক শামসুজ্জামান খান। দুই গুণীকে নিয়ে আলোচনায় অংশ নেন- নাশিদ কামাল, খায়রুল আনাম শাকিল, মাহমুদ সেলিম ও নিশাত জাহান রানা। সভাপতিত্ব করেন ইমেরিটাস অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম। এ সময় এতে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- ড. ইসরাইল খান, ড. সৌমিত্র শেখর, কণ্ঠশিল্পী ইন্দ্রমোহন রাজবংশী, বুলবুল মহলানবীশ, সাইদুর রহমান বয়াতি প্রমুখ। সূচনা বক্তব্যে অধ্যাপক শামসুজ্জামান খান বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে আমরা সাহিত্য ও সংস্কৃতি জগতের বেশ কয়েকজন গুণীকে হারিয়েছি। সুধীন দাশ এবং করুণাময় গোস্বামী এমনই দুজন বিরল সাহিত্য-সংস্কৃতিসাধক যারা তাদের জীবনব্যাপী কীর্তির মধ্য দিয়ে আমাদের ঋদ্ধ করেছেন এবং শুদ্ধতার শিক্ষা দিয়েছেন।

আলোচকরা বলেন, সুধীন দাশ নজরুলগীতির বাণী ও সুরের শুদ্ধতা রক্ষার সংগ্রাম করে গেছেন সবসময়। নজরুলের গানের এক অনন্য পরম্পরা তিনি সৃষ্টি করেছেন তরুণ প্রজন্মের মধ্য দিয়ে। এভাবে নজরুল গবেষক এবং নজরুলপ্রেমীদের অনন্য ঋণে আবদ্ধ করেছেন সুধীন দাশ। অন্যদিকে, করুণাময় গোস্বামী নজরুলগীতি বিষয়ে প্রাতিষ্ঠানিক গবেষণায় যেমন দক্ষতা দেখিয়েছেন তেমনই রবীন্দ্রনাথ ও নজরুলের সাহিত্য-সঙ্গীতের বিভিন্ন দিক নিয়ে উন্মোচিত আলোচনায় দিশারির ভূমিকা পালন করেছেন। জীবনের শেষ প্রান্তে এসে করুণাময় গোস্বামী দেশভাগকে কেন্দ্র করে দুটি উপন্যাস রচনার মধ্য দিয়ে কথাসাহিত্যিক হিসেবেও তার বিশিষ্টতার পরিচয় রেখে গেছেন।

সভাপতির বক্তব্যে অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম বলেন, সুধীন দাশ এবং করুণাময় গোস্বামী দুজনেই নজরুলকে নিয়ে আমৃত্যু কাজ করেছেন। সুধীন দাশের প্রধান ক্ষেত্র নজরুলের গান আর করুণাময় গোস্বামী রবীন্দ্রনাথ এবং নজরুলের সঙ্গীতভুবনসহ সামগ্রিক বিষয় নিয়ে গবেষণা করেছেন। তাদের অনন্য সৃজনকর্ম উত্তরকালের গবেষক এবং শুভবুদ্ধির সংস্কৃতিমনষ্ক মানুষকে পথ দেখাবে নিরন্তর।

এদিকে, আজ মঙ্গলবার বিকেল ৪টায় বাংলা একাডেমির কবি শামসুর রাহমান সেমিনার কক্ষে মরহুম শিশুসাহিত্যিক ও গবেষক শামসুল হক এবং প্রাবন্ধিক-গবেষক আজহার ইসলাম স্মরণসভা অনুষ্ঠিত হবে। সভায় আলোচনা করবেন- কবি আসাদ চৌধুরী এবং শিশুসাহিত্যিক আলী ইমাম। সভাপতিত্ব করবেন ইমেরিটাস অধ্যাপক আনিসুজ্জামান।

শেষ পাতা'র আরও সংবাদ