পর্দা নামল উন্নয়ন মেলার তৃতীয় আসরের

রবিবার, ১৪ জানুয়ারি ২০১৮

কাগজ প্রতিবেদক : পর্দা নামল সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড প্রদশর্নীর। উন্নয়ন মেলার শেষদিনে ছেলে থেকে বুড়ো সব বয়সী মানুষের ভিড় ছিল সকাল থেকে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বেড়েছে দর্শনার্থীর ভিড়। অনেকেই পরিবার নিয়ে ঘুরে দেখেছেন সরকারের এ উন্নয়ন কর্মকাণ্ড। বিগত বছরগুলোতে সরকারের করা উন্নয়ন প্রকল্পের আংশিক চিত্র এ মেলায় ফুটে উঠেছে।

গতকাল শনিবার রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমি প্রাঙ্গণ ঘুরে দেখা গেছে, অন্যান্য দিনের তুলনায় মেলার শেষদিনে মানুষের উপস্থিতি ছিল লক্ষণীয়। এ সময় সব শ্রেণি- পেশার মানুষ এসেছেন সরকারের উন্নয়নের খাতগুলো স্বচক্ষে দেখতে। সরকারের মেগা প্রকল্পগুলো ছিল অত্যন্ত প্রশংসনীয়। সাধারণ মানুষরা এ প্রকল্পের বিষয়ে শুধু খোঁজ নিচ্ছে না- কবে ব্যবহার উপযোগী হবে নিশ্চিত হতে চাচ্ছেন। সব শ্রেণি- পেশার মানুষরা সরকারের এ প্রকল্পগুলোর ভূয়সী প্রসংশা করছেন। তারা বলছেন, এ সরকার দেশের উন্নয়নে কাজ করছে। সাধারণ মানুষের ভাগ্য উন্নয়নে সর্বদা সরব রয়েছে।

বিভিন্ন স্টল ঘুরে দেখা গেছে, রেলপথ মন্ত্রণালয়ের স্টলের সামনে রয়েছে উৎসুক মানুষের ভিড়। তারা জানতে চাচ্ছেন কবে সরকার মেট্রোরেল প্রকল্প চালু করবে। এছাড়া পরিবার পরিজন নিয়ে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী, বিমানবাহিনীর স্টল ঘুরে দেখছেন। বিমানবাহিনীর স্টলের সামনে টানানো স্কিনে বিমানবাহিনীর কর্মকাণ্ড প্রদর্শন করার পাশাপাশি উন্নয়নমূলক কাজে বিমানবাহিনীর অংশ নেয়ার বিষয়টি তুলে ধরা হয়েছে।

কর্মকর্তারা জানান, এমন মানুষ আছেন যারা শুধু মুখে শুনেছেন সরকারের উন্নয়নের গল্প। এবার মেলায় এসে উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে চিত্র দেখেছেন। ছুটির দিনে সকাল থেকে সরকারি ও বেসরকারি মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানিতে কর্মরত অনেকে মেলায় এসেছেন। তারা সরকাারি দপ্তর যে আগের তুলনায় অনেক গতিশীল হয়েছে তা অবলোকন করে গেছেন।

উন্নয়ন মেলায় কথা হয় সরকারি চাকরিজীবী কামাল হোসেনের সঙ্গে। তিনি ভোরের কাগজকে জানান, যেভাবে দেশের উন্নয়ন হচ্ছে খুব শিগরিই দেশ মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হবে। প্রধানমন্ত্রীর সঠিক নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে বলে মন্তব্য করেন এই কর্মকর্তা।

এদিকে রাজধানীর পাশাপাশি সারা দেশে চলছে এ উন্নয়ন মেলা। এ মেলায় সারা দেশে জনগণের অংশগ্রহণ ছিল চোখে পড়ার মতো। দেশের সরকারি, আধাসরকারি ও বেসরকারি সংস্থার পক্ষ থেকে মেলায় আগতদের সামনে তাদের নিজ নিজ সংস্থার উন্নয়ন কার্যক্রম তুলে ধরা হয়েছে। মানুষ সরকারি সংস্থাগুলোর সেবাসমূহ মেলা থেকে সরাসরি পেয়েছে। ২০০৮ থেকে ২০১৭ পর্যন্ত দেশের অনেক উন্নয়ন হয়েছে। সবাই উন্নয়নে অংশীদার। এ অর্জন সবার। এ উন্নয়ন জন সম্মুখে তুলে ধরার মধ্য দিয়ে এ আসরের অবসান হয়েছে।

দেশের উন্নয়নের চিত্র জনগণের কাছে তুলে ধরতে রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমিতে তিন দিনব্যাপী এ মেলার আয়োজন করেছে ঢাকা জেলা প্রশাসন। সমাপনী দিনে পুরস্কার বিতরণ করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

অর্থ-শিল্প-বাণিজ্য'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj