তীব্র শীতে বিপাকে নিম্ন আয়ের মানুষ

রবিবার, ১৪ জানুয়ারি ২০১৮

মধুপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি : টাঙ্গাইলের মধুপুর ও ধনবাড়ীতে ঠাণ্ডা বাতাসের তীব্র শীতে কাঁপছে সাধারণ মানুষ। বিশেষ করে ছিন্নমূল মানুষ এবং অতিদরিদ্র ও প্রান্তিক পরিবারের প্রবীণ ও শিশুরা পড়েছে বেকায়দায়। মধুপুর-ধনবাড়ী মাঠে-ঘাঠে ক্ষেত-খামারে শ্রমিকদের কাজ করার উপায় নেই। এতে বিপাকে পড়েছে বিভিন্ন পেশাজীবীর মানুষ। শুধু ক্ষেতে-খামারে নয় শীতের প্রভাব পড়েছে ছোটখাটো রাস্তাঘাটসহ মহাসড়কেও। শীতে বিভিন্ন যানবাহন চলাচলে বিঘ্নিত হচ্ছে। ঘন কুয়াশা ও কনকনে ঠাণ্ডা বাতাসের কারণে টানা তিনদিন শৈতপ্রবাহ বইছে। তীব্র ঠাণ্ডার ফলে নিম্ন আয়ের লোকজন পড়েছে চরম দুর্ভোগে। ঠাণ্ডা বাতাস ও ঘন কুয়াশায় কাবু করে ফেলেছে সব শ্রেণির মানুষকে। শীতের তীব্রতা বৃদ্ধি পাওয়ায় সাধারণ মানুষ প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের হচ্ছে না। হঠাৎ করে তাপমাত্রা কমে যাওয়ায় মানুষজন খড়-কুটো ও লাকড়ি জ্বালিয়ে শীত নিবারণের চেষ্টা করছে। পর্যাপ্ত শীতবস্ত্র না থাকায় একদিকে কাজে যেতে পারছে না অন্যদিকে পরিবার পরিজন নিয়ে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে নিম্ন আয়ের মানুষ।

মধুপুরে শুক্রবার সকালে তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৯ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তীব্র শীতের কারণে মানুষের ডায়রিয়া, নিউমোনিয়া, শ্বাসকষ্টসহ বিভিন্ন শীতজনিত রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। শীত নিবারণের জন্য প্রয়োজনীয় গরম কাপড় না থাকায় ধনবাড়ী উপজেলার পৌর শহরের ফুটপাতের পুরনো কাপড়ের দোকানে মানুষের উপচেপড়া ভিড় দেখা যায়। ক্রেতা জীবন মাহমুদ জানান, ব্যবসায়ীরা ইচ্ছেমতো কাপড়ের দাম নিচ্ছে। বাধ্য হয়ে বেশি দামে গরম কাপড় কিনতে হচ্ছে।

সারাদেশ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj