গোবিন্দগঞ্জে স্কুলছাত্রী ধর্ষণ : মামলায় গ্রেপ্তার হয়নি কেউ

রবিবার, ১৪ জানুয়ারি ২০১৮

গোবিন্দগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি : উপজেলার বিশুবাড়ী গ্রামে দশম শ্রেণির এক ছাত্রীকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ধর্ষণের পর বাড়িতে ফিরিয়ে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় ছাত্রীর মা কুলসুম বেগম বাদী হয়ে স্থানীয় থানায় মামলা করেন। মামলার পর ২ দিন পেরিয়ে গেলেও পুলিশ কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।

কুলসুম বেগম জানান, তার মেয়ে পার্শ্ববর্তী মারিয়া সাহেববাড়ী গ্রামের খালার বাড়িতে বেড়াতে যায়। সেখানে সোমবার রাতে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে মোটরসাইকেলে তুলে নিয়ে যায় ৪-৫ জনের সংঘবদ্ধ দুর্বৃত্তের দল। পরে তারা মেয়েটিকে কাঁঠালবাড়ি এলাকার এনামুলের বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে রাতভর তাকে ধর্ষণ করে। ঘটনার পরের দিন মঙ্গলবার সকালে মেয়েকে আমার কাছে পৌঁছে দেয়।

এ ঘটনায় তিনি বুধবার রাতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে গোবিন্দগঞ্জ থানায় একটি মামলা করেন। মামলায় মারিয়া সাহেববাড়ী গ্রামের রেজাউল করিমের ছেলে মিজানুরসহ ৪ জনকে অভিযুক্ত করা হয়। গ্রেপ্তারের ভয়ে পলাতক থাকায় মিজানুর ও তার সহযোগীদের বক্তব্য পাওয়া যায়নি। গোবিন্দগঞ্জ থানার ওসি মজিবুর রহমান বলেন, ভিকটিমের মেডিকেল পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

এই জনপদ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj