একদিনে পাঁচ সেঞ্চুরি

বুধবার, ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

ক্রীড়া প্রতিবেদক : ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে গতকাল ফাগুনের রং লেগেছিল ব্যাটসম্যানদের ব্যাটে। শিরোপা প্রত্যাশী আবাহনী ১৩৬ রানে ব্রাদার্স ইউনিয়নকে, গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সকে ৫ উইকেটে হারিয়েছে খেলাঘর সমাজকল্যাণ এবং কলাবাগানকে ৮ উইকেটে হারিয়েছে প্রাইম দোলেশ্বর। তিন ম্যাচে প্রিমিয়ার লিগে গতকাল পাঁচটি সেঞ্চুরির দেখা পেয়েছে ব্যাটসম্যানরা। কলাবাগান-প্রাইম দোলেশ্বর ম্যাচেই দেখা মিলেছে তিন সেঞ্চুরির! বাকি দুই ম্যাচে এসেছে একটি করে সেঞ্চুরি। সব মিলিয়ে দিনটি ছিল পাঁচ সেঞ্চুরির।

সাভার বিকেএসপির তিন নাম্বার মাঠে প্রিমিয়ার লিগের (ডিপিএল) ম্যাচে ডানহাতি ওপেনার জহুরুল ইসলামের দুর্দান্ত সেঞ্চুরির পরও গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স ৫ উইকেটে হেরে গেছে খেলাঘর সমাজকল্যাণ সমিতির কাছে। প্রথমে ব্যাট করে ৫ উইকেটে ২৪৭ রান তুলেছিল গাজী গ্রুপ। ১০২ রানের এক ইনিংসে দলকে বলতে গেলে একাই লড়াকু পুঁজি এনে দিয়েছেন জহুরুল। ১৪২ বল মোকাবেলায় গড়া তার ইনিংসটিতে ছিল ৫টি বাউন্ডারি আর ১টি ছক্কার মার। এ ছাড়া ভারতের রজত ভাটিয়া অপরাজিত ৬১ আর মুমিনুল হক করেন ৪৬ রান।

জবাব দিতে নেমে মাহিদুল ইসলাম অঙ্কন আর অশোক মেনারিয়ার জোড়া হাফসেঞ্চুরিতে ৯ বল বাকি থাকতেই জয় পেয়ে যায় খেলাঘর। অঙ্কন ১০৯ বলে ৭ বাউন্ডারি আর ৪ ছক্কায় করেন ৮৫ রান। মেনারিয়া করেন ৫০ বলে ৫১। ফতুল্লায় আবাহনীর হয়ে ১০৮ রানের ইনিংস খেলেন অনূর্ধ্ব-১৯ দলের ব্যাটসম্যান সাইফ হাসান। ৬ বাউন্ডারি ও ৫ ছক্কায় ১৩২ বলে ইনিংসটি সাজান সাইফ। তার সেঞ্চুরিতে ২৬৬ রানের স্কোর গড়ে আবাহনী। জবাবে ব্রাদার্স ইউনিয়ন গুটিয়ে গেছে মাত্র ১৩০ রানেই! আবাহনীর দুই স্পিনার মেহেদী হাসান মিরাজ (৩/২৪) ও সানজামুল ইসলামের (৩/২৮) সামনে দাঁড়াতেই পারেনি ব্রাদার্স। আবাহনীর আরেক স্পিনার সাকলাইন সজীব নিয়েছেন ২ উইকেট। বিকেএসপির ৪ নম্বর মাঠে ম্যাচের প্রথম ইনিংস পর্যন্ত সব আলো কেড়ে নিয়েছিলেন মোহাম্মদ আশরাফুল।

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে প্রাইম দোলেশ্বরের বিপক্ষে ১০৪ রানের ইনিংস খেলেন কলাবাগান ক্রীড়াচক্রের এ ব্যাটসম্যান। কিন্তু প্রায় ৯ বছর পর প্রিমিয়ার লিগে আশরাফুলের এ সেঞ্চুরিকে ¤øান করে দিয়েছেন লিটন দাস। জাতীয় দলের এ উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান ঘরোয়া ক্রিকেটে ফিরেই দারুণ এক সেঞ্চুরি করে ৮ উইকেটের জয় এনে দিয়েছেন প্রাইম দোলেশ্বরকে। কলাবাগানের হয়ে আশরাফুল ছাড়াও সেঞ্চুরি করেছিলেন তাইবুর রহমান। ১১৪ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেন তিনি। দুই সেঞ্চুরিতে ৪ উইকেটে ২৯০ রানের বড় স্কোর দাঁড় করিয়েছিল কলাবাগান। কিন্তু লিটনের অপরাজিত ১৪৩ রানের ইনিংসে ৩০ বল হাতে রেখেই জয়ের বন্দরে নোঙর করে প্রাইম দোলেশ্বর।

খেলা-ধূলা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj