বিএনপির অবস্থান কর্মসূচি পালিত

বৃহস্পতিবার, ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

সারা দেশ ডেস্ক : কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে বিএনপির চেয়ারম্যানপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে সারা দেশে গত মঙ্গলবার অবস্থান কর্মসূচি পালিত হয়। ভোরের কাগজ প্রতিনিধিদের পাঠানো সংবাদ-

নাগরপুর (টাঙ্গাইল) : নাগরপুরে খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি ও বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে রায় প্রত্যাহারের দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি পালিত হয়। উপজেলা বিএনপি ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে নাগরপুর বাসস্ট্যান্ডে কেন্দ্রীয় ঘোষিত এ অবস্থান কর্মসূচি পালন করা হয়।

কেদ্রীয় বিএনপির পল্লী উন্নয়ন বিষয়ক সম্পাদক ও সাবেক পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট গৌতম চক্রবর্তীর নেতৃত্বে অবস্থান কর্মসূচিতে এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক আহাম্মদ আলী রানা, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. রফিজ উদ্দিন, যুবদলের আহ্বায়ক ফনির হোসেন ভুঁইয়া প্রমুখ।

গোলাপগঞ্জ : বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা মামলা দিয়ে কারাগারে প্রেরণের প্রতিবাদে ও নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে গোলাপগঞ্জে বিএনপি অবস্থান কর্মসূচি পালন করে। সারা দেশের মতো বেলা ১১টা থেকে এক ঘণ্টা এ অবস্থান কর্মসূচি পালন করা হয়। পৌর শহরের নূর ম্যানশনের কর্মসূচি পালনকালে উপস্থিত ছিলেন- উপজেলা বিএনপির সভাপতি চেয়ারম্যান নছিরুল হক শাহিন, সাধারণ সম্পাদক চেয়ারম্যান জিলাল উদ্দিন জিলাল, সহ-সভাপতি ডা. আব্দুল গফুর, উপজেলা যুবদল সভাপতি প্রমুখ।

দিনাজপুর : জেলায় পুলিশ বেষ্টনীর মধ্যে দলীয় আধঘণ্টার অবস্থান কর্মসূচি পালন করে। দিনাজপুর জেলা বিএনপির আহ্বায়ক এ জেড এম রেজওয়ানুল হকের নেতৃত্বে বিকেল ৩টা ২৫ মিনিট থেকে ৩টা ৫৫ মিনিট পর্যন্ত এ অবস্থান কর্মসূচি পালন করে। অবস্থান কর্মসূচিকে ঘিরে সকাল থেকে পুলিশ দলীয় কার্যালয়ে অবস্থান নেয়। বিকেল ২০ নেতাকর্মী দলীয় কার্যালয়ের ভেতরে অবস্থান নেন। এ সময় বিপুল পরিমাণ পুলিশ দলীয় কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নেয়। অবস্থান কর্মসূচি শেষ করে নেতাকর্মীরা দলীয় কার্যালয় থেকে বের হয়ে যান। অবস্থান কর্মসূচিতে জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক লুৎফর রহমান মিন্টু, রেজিনা ইসলাম, মোকাররম হোসেন প্রমুখ অংশগ্রহণ করেন।

কুলাউড়া (মৌলভীবাজার) : কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে কুলাউড়ায় বিএনপির অবস্থান সমাবেশ কর্মসূচি পৌরসভা কার্যালয় সম্মুখে গত মঙ্গলবার বেলা ১১টায় পালিত হয়। অবস্থান কর্মসূচি চলাকালে সেখানে উপস্থিত নেতাকর্মীদের মধ্য থেকে পুলিশকে উত্তপ্ত কথাবার্তা এবং ইটপাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। এ সময় সেখানে উপস্থিত নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, পৌর কার্যালয় সম্মুখ সড়কের পাশে মঙ্গলবার বেলা ১১টায় কুলাউড়া বিএনপির অবস্থান কর্মসূচি চলছিল। অবস্থান কর্মসূচিতে বক্তব্য দেন- উপজেলা বিএনপির সভাপতি কামাল উদ্দিন আহমদ জুনেদ, সাধারণ সম্পাদক রেদোওয়ান খাঁন। পরে পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মুজিবুল আলম সুহেলের বক্তব্য চলাকালে বিএনপি নেতাকর্মীদের দ্রুত কর্মসূচি শেষ করার আহ্বান করে পুলিশ। এ সময় সমাবেশ থেকে কয়েকজন নেতাকর্মী পুলিশকে উদ্দেশ্য করে উত্তপ্ত কথাবার্তা বলতে থাকেন ও ইটপাটকেল নিক্ষেপ করেন। পরে পুলিশ নেতাকর্মীদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে এবং পরে পুলিশ সেখান থেকে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। পুলিশের ধাওয়া খেয়ে নেতাকর্মীরা দৌড়ে পালিয়ে যান। এ সময় শহরে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। পুলিশের দাবি এ ঘটনায় ৫ জন পুলিশ আহত হয়। কুলাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) বিনয় ভূষণ রায় বলেন, প্রশাসনের অনুমতি ছাড়া বিএনপির নেতাকর্মীরা মিছিল করছিল। অনুমতি ছাড়া কীভাবে মিছিল-সমাবেশ করছেন বিষয়টি জানতে চাইলে তখন সেখানে উপস্থিত বিএনপির নেতাকর্মীরা আমাদের ওপর চড়াও হয় এবং ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। এতে ৫ পুলিশ আহত হন।

সারাদেশ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj