সম্মিলিত প্রতিরোধে জয়! : তুরাগ বাসে ছাত্রীকে যৌন হয়রানি, তিন জন গ্রেপ্তার

মঙ্গলবার, ২৪ এপ্রিল ২০১৮

কাগজ প্রতিবেদক : রাজধানীর বাড্ডায় তুরাগ পরিবহনের বাসে গত শনিবার দুপুরে উত্তরা ইউনিভার্সিটির এক ছাত্রীকে যৌন হয়রানির ঘটনা ঘটে। পরে ওই শিক্ষার্থীর স্বামী মামলা দায়ের করলে বাসসহ অভিযুক্ত ৩ জনকে সায়েদাবাদ এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে গুলশান থানা পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- বাসের চালক রোমান, কন্ডাক্টর মনির ও হেলপার নয়ন।

গুলশান থানার ওসি আবু বকর সিদ্দিকি জানান, রবিবার এ ঘটনায় অজ্ঞাতনামা তিনজনের বিরুদ্ধে গুলশান থানায় মামলা করেন ভুক্তভোগী ছাত্রীর স্বামী। পরে গতকাল বাসসহ ওই ৩ জনকে সায়েদাবাদ এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ভিকটিম শিক্ষার্থীরা তাদের দেখে চিহ্নিতও করেছেন। তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এর আগে, যৌন নির্যাতনের খবর ছড়িয়ে পড়ার পরপরই ঘটনার প্রতিবাদে তুরাগ পরিবহনের বাস চলাচল বন্ধ করে দেয় ওই ছাত্রীর সহপাঠী শিক্ষার্থীরা। তুরাগ পরিবহনের ৩৫টি বাস সারা রাত আটকে রাখে তারা। তবে তারা এসব বাসে কোনো প্রকার ভাঙচুর করেনি, নিয়মমাফিক থানায় জিডি করেছে। মালিকপক্ষকে বাধ্য করেছে সিসিটিভি ফুটেজ দেখে ব্যবস্থা নিতে। ঘটনাটি সচেতন মহলে বিশেষ সাড়া ফেলেছে এ কারণে যে, একা মেয়ে থানায় গিয়ে মামলা করতে গেলে যে ধরনের হয়রানির আশঙ্কা রয়ে যায়, এক্ষেত্রে সে ধরনের কোনো ঘটনা ঘটেনি। সুবিচার পাওয়ার ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের সব ধরনের সহযোগিতা দিয়েছে পুলিশ। এ দিকে শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, গত শনিবার দুপুরে উত্তরা ৬ নম্বর সেক্টরের বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান উত্তরা ইউনিভার্সিটির ক্যাম্পাসে আসার জন্য উত্তর বাড্ডা থেকে তুরাগ পরিবহনের একটি বাসে ওঠেন ওই ছাত্রী। এ সময় বাসে যাত্রী ছিলেন মাত্র ৭-৮ জন। বাস সামনে যাবে না বলে যাত্রীদের নামাতে থাকে বাসের স্টাফ। এ সময় ওই ছাত্রীর সন্দেহ হলে তিনিও বাস থেকে নামতে চেষ্টা করেন।

কিন্তু বাসের হেলপার এ সময় দরজা বন্ধ করে দেয়। কন্ডাক্টর তার হাত ধরে টানতে শুরু করে। কন্ডাক্টর ও হেলপারের সঙ্গে ধস্তাধস্তির একপর্যায়ে চলন্ত বাস থেকেই লাফিয়ে পড়েন মেয়েটি। ক্যাম্পাসে এসে বিষয়টি সবাইকে জানালে শিক্ষার্থীরা বিশ^বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণের অনুরোধ করেন। সেটি না হওয়ায় পরদিন রবিবার বাসের চালক, হেলপার ও কন্ডাক্টরকে আটকের দাবিতে রাস্তায় মানববন্ধন করেন শিক্ষার্থীরা। এ সময় ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা তুরাগ পরিবহনের বেশ কয়েকটি বাস আটকে রাখেন। এ ঘটনায় গতকাল সোমবারও সংবাদ সম্মেলন করেন শিক্ষার্থীরা।

প্রথম পাতা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj