শরৎকালের ফুল : খোন্দকার শাহিদুল হক

শরৎরানীর আঁচলভরা নানান রকম ফুল কাশের ছোঁয়ায় মাতোয়ারা নদীর উভয় ক‚ল। শুভ্র শাড়ির লাল আঁচলে জারুল-বেলি-জুঁই পদ্ম-কেয়া শাপলা-শালুক ইচ্ছে হবে ছুঁই। দোলনচাঁপা কামিনী আর রাধাচূড়া-ঝিঙে মাধবী আর ছাতিম দেখে নাচে দোয়েল-ফিঙে। নয়নতারা... বিস্তারিত

ঈদের চাঁদ : আনোয়ার হোসেন ফারুক

জমছে দেখি ঈদের বাজার কিনছে গরু খাসি, ঈদের আমেজ বইছে সদায় সবার মুখে হাসি। খুশির জোয়ার গাঁও গেরামে শহর নগর হাটে, চলছে শেয়ার খুশির আমেজ ম্যাসেঞ্জারের চ্যাটে। মনের মাঝে আছেতো ভাই বানভাসিদের... বিস্তারিত

স্বাধীনতা : শামীম শিকদার

রাইফা সবেমাত্র তৃতীয় শ্রেণিতে উঠেছে, খুব চুপচাপ একটি মেয়ে। বাবা-মার অবাধ্য হয় না কোনো সময়। বাবা-মা যা বলে বাধ্য মেয়ের মতো সব মেনে নেয় যদিও বায়না ধরার অভ্যাসটি তার একটু বেশি। সপ্তাহে... বিস্তারিত

তুমি নজরুল : মৃধা আলাউদ্দিন

তুমি নজরুল হাফিজের ফুল শরাব-সাকির সুধা, বিদ্রোহী বীর শ্বেত-সাদা তীর আবার ‘মৃত্যু-ক্ষুধা’। ‘দোলন চাঁপা’র কোমল খোঁপার গজল গানের কবি, সাম্যের গান ঝিলামের পান ‘বিষের বাঁশী’র ছবি। ইরানি প্রিয়ার কোমল বাহার পল্লীবালার প্রেম... বিস্তারিত

হাত বাড়ালে : আল জাবিরী

ছোট্ট খোকা বলছে মাকে কাল নাকি মা ঈদের দিন তাই বুঝি আজ ওদের ঘরে এত্ত খুশির বাজনা বীণ? মোদের ঘরে নাই কেন মা নিত্য-নতুন ঈদের সাজ ঈদের দিনেও আমরা বুঝি তাদের ঘরে... বিস্তারিত

বন্যা : রাধাগোবিন্দ বিশ্বাস

বানের জলে ভাসছে মানুষ ভাসছে মুরগি-হাঁস সর্বনাশা বন্যা এসে করলো সবই গ্রাস। স্ত্রী-পুত্র নিয়ে সবাই গেছে গ্রাম ছাড়ি বানের জলে ফসল গেছে, গেছে বসতবাড়ি। কারো আবার যাচ্ছে দিন নৌকা কিবা ভেল। আর... বিস্তারিত

টিয়া কথন : মামুন সিরাজী

এখন আমি শহুরে হয়ে গেছি। থাকি শহরের একটি অভিজাত এলাকায়। দোতলা বাড়ির নিচতলায় ঝুল বারান্দায় একটা কালচে রংয়ের ঝোলানো খাঁচায় আমার বাসা। এখান থেকে দিব্যি দুবেলা মানুষজন, ঘরবাড়ি, কুকুর-বিড়াল, কাক-শালিক আরো কত... বিস্তারিত

শরতের পিঠে : সাজেদ বিশ্বাস

ঝকঝকা রুপোর রেকাবি পরে রোদ দৌড়ে বেড়ায়- মেঘের সারি হিমালয়ে পাঠিয়ে, কাশফুল ডগায়। কতো রূপের বাহার শরতের নীল আকাশ তলে! শেফালি গন্ধ মাখা বাতাস খেলা করে বাংলার কোলে। সবুজ ক্ষেত পরিচর্যায় নিমগ্ন... বিস্তারিত

বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন : আলমগীর কবির

বঙ্গবন্ধুর হৃদয় জুড়ে বাংলাদেশের মাটি স্বাধীন হবে সোনার এ দেশ চাওয়া ছিল খাঁটি। স্বপ্ন ছিল দেশের মানুষ বাঁচবে সুখে দুঃখে, শোষণ দেখে তাইতো তিনি উঠেছিলেন রুখে। একটি স্বাধীন দেশ হবে আর একটি... বিস্তারিত

জয়ী ও দাদু : জ্যোৎ¯œা লিপি

আকাশজুড়ে আজ লক্ষ-কোটি তারার মেলা। জয়ী ছাদে শুয়ে শুয়ে তারাদের দেখে। সবচেয়ে উজ্জ্বল তারাটির নাম দিয়েছে সে ভালো দাদু। ভালো দাদু এখন জয়ীর বন্ধু। প্রায় রাতেই জয়ী শুয়ে শুয়ে ভালো দাদুকে দেখে।... বিস্তারিত

বর্ষা : মাহমুদুর রহমান খাঁন

মেঘলা আকাশ কাঁপছে যে গুড়ুম গুড়ুম ধ্বনিতে বৃষ্টি ঝরছে যে মেঘ শীতল শীতল পানিতে। বৃষ্টির ফোঁটা গড়িয়ে পড়ে জমতে জমতে বন্যা সেই পানিতে নেচে বেড়ায় মেঘকুমারী কন্যা। আকাশ ঝরে আলো আলোয় আলোয়... বিস্তারিত

বন্ধু : সুমন আহমেদ

বন্ধু মানে ভাগাভাগি সুখ দুঃখের ভেলা, হাতে হাত বুকে বুক মিলিয়ে কেটে যায় বেলা। বন্ধু আমার আঁধার রাতে পূর্ণিমারই আলো, তাকে ছাড়া এই ভুবন অমাবস্যায় ঢাকা কালো। বন্ধু আমার সাতসকালের মিষ্টি কিরণ... বিস্তারিত

তাজমহল : ইসরাত জাহান একা

আমি দেখতে যাব আজ সেই বিস্ময়কর তাজ! সেথা ছড়িয়ে আছে বহু নিদর্শন যা বাড়িয়ে দেয় আকর্ষণ। বেগমকে ভালোবেসে সম্রাট শাহজাহান খুব সুন্দর করে এই তাজমহল বানান। সেখানেই থাকত মমতাজ আলো করে রাখত... বিস্তারিত

বঙ্গবন্ধু : আহাদ আলী মোল্লা

জাতির পিতা শেখ মুজিবুর দেশকে ভালো বাসতেন, শিশু-কিশোর কাছে পেলে আদর দিয়ে হাসতেন। দেশ ও দশের উন্নয়নের কথা সদায় বলতেন, অতি সাধারণের মতোই সরল মনে চলতেন। বাংলাদেশের মুক্ত হাওয়া নিয়ে বুকে ভরতেন,... বিস্তারিত

সোনাব্যাঙের বিয়ে : আরাফাত শাহীন

সোনাগাছি গাঁয়ে বিরাট একটা ডোবা ছিল। সেই ডোবায় বাস করত মিয়াং নামে এক সোনাব্যাঙ। মিয়াং ছিল এই ডোবার রাজা। সে ছিল বদমেজাজি এবং স্বেচ্ছাচারী, কারো কোনো মতামত সে শুনত না। মিয়াংয়ের সেনাপতি... বিস্তারিত

চাঁদের কণা : তরণী কান্ত সুমন

ছোট্ট সোনা চাঁদের কণা চাঁদের বাড়ি যাবে? ইচ্ছে যত মিঠাই মণ্ডা পেট পুড়িয়ে খাবে। চাঁদের দেশে তারার মেলা কত-শত পরী, রহস্যটা খুঁজবে তুমি গল্প-কত পড়ি। স্বর্ণ ডানায় চাঁদের পরী চাঁদে বেরায় ঘুরে,... বিস্তারিত

৭ই মার্চ ও একটি তর্জনী : বেণীমাধব সরকার

জনসমুদ্রে জোয়ার এসেছে উছলে উঠেছে ঢেউ আবাল-বৃদ্ধ-বনিতারা আজ ঘরে বুঝি নেই কেউ। এসেছে মজুর এসেছে কৃষক এসেছে ছাত্রগণ গুরু পণ্ডিত শিষ্য মুরিদ বাকি নেই কোনো জন। রেসকোর্সের ময়দান জাগে লাঠি আর বৈঠায়... বিস্তারিত

বন্ধুর শিক্ষা : মাহমুদ আল হাসান

রাসেল তার বন্ধুদের নিয়ে একদিন বিকেলে খেলতে যায়। সেদিন ওরা রাফির বল ও ব্যাট দিয়ে খেলছিলো। রাসেল প্রথমে ব্যাট করছিলো। রাসেল ছক্কা মারার জন্যে ব্যাট চালাতেই বলটা অনেক দূরে গিয়ে পড়ে। বলটা... বিস্তারিত

এডিস মশা : শশধর চন্দ্র রায়

এ মশা সাদা-কালো শরীর এবং পায়ে, ডোরাকাটা দাগ যে আছে এ মশারই গায়ে। ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া ছড়ায় এডিস মশা, ভোরে এবং সন্ধ্যাবেলায় বাড়ে তার পিপাসা। ফুলের টবে, ড্রাম, টায়ারে এ মশা ডিম... বিস্তারিত

সোনাঝরা দিন : শামীম শাহাবুদ্দীন

বর্ষায় ভরে যায় নদী-নালা খাল ছোটাছুটি করে মাছ হয়ে বেসামাল। নৌকার মাঝি গায় ভাটিয়ালি গান সুর ধরে পাখি সব করে কলতান। দুষ্টু ছেলের দল মারে লাফ-ঝাঁপ খালের কিনারে ভাসে কালি-ঢোঁরা সাপ। সারি... বিস্তারিত

Bhorerkagoj